Take a fresh look at your lifestyle.

জাপানে দাবদাহে মৃতের সংখ্যা ৮০…

৩৫

বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে প্রতিকূল আবহাওয়ায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে স্বাভাবিক জনজীবন। জাপানে তীব্র দাবদাহে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮০ জনে। এই পরিস্থিতি আগস্টের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তীব্র দাবদাহ চলছে ফ্রান্স ও ব্রিটেনেও। এদিকে লাওসে জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের বাঁধ ধসে সৃষ্ট বন্যায় এখন পর্যন্ত ২০ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী থংলুন সিসলথ। এছাড়াও ভারী বৃষ্টিপাতে বন্যা দেখা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে।

জাপানে তীব্র দাবদাহে মৃতের সংখ্যা বাড়ছেই। মঙ্গলবারও বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও কয়েক হাজার মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে পাঠানো হয়েছে উল্লেখ করে এই অবস্থা আরও কিছুদিন চলমান থাকবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এদিকে এ তাপমাত্রাকে জাপানের ইতিহাসে স্মরণকালের সর্বোচ্চ বলে জানিয়েছে দেশটির আবহাওয়া দফতর।

একজন জাপানিজরা বলছেন, ‘গরমের কারনে আমি রুমের সবগুলো জানালা খুলে দেয়ার পাশাপাশি, ফান চালু করে শরীরে বরফ লাগিয়ে ঘুমাতে যাই। রাতে ভালো ঘুম না হলে পরেরদিন অনেক ক্লান্ত লাগে, তাই আমি চেষ্টা করি যাতে ভালো ঘুমাতে পারি।’

ব্রিটেন
এদিকে তীব্র তাপদাহ চলছে ব্রিটেনেও। মঙ্গলবার লন্ডনের তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩০ ডিগ্রী সেলসিয়াস। একান্ত জরুরি কাজ না থাকলে ঘর থেকে বের হচ্ছে না লোকজন। এ অবস্থায় সবাইকে নিরাপদে থাকতে বলেছে দেশটির আবহাওয়া দফতর। এছাড়াও সপ্তাহজুড়ে এ পরিস্থিতি চলমান থাকবে বলে জানানো হয়।

ফ্রান্স
অতিরিক্ত তাপমাত্রা ও বায়ুপ্রবাহ কম থাকায় দূষণ দেয়া দিয়েছে প্যারিসে। বাতাসে ওজন গ্যাসের পরিমাণ বেড়ে যাওয়ার কারণেই এটি হয়েছে বলে জানান কর্তৃপক্ষ। যা দুর্ভোগে ফেলেছে পর্যটকদের।

পর্যটকরা বলছেন, ‘আমরা ছায়া দিয়ে হাটার চেষ্টা করি, কিন্তু সবসময় তো আর সেটা সম্ভব হয় না তাই প্রচুর পরিমাণে পানি পান করতে হয়।’

লাওস
এদিকে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ লাওসে জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের বাঁধ ধসে সৃষ্ট বন্যায় নিখোঁজদের সন্ধানে জোর তৎপরতা চালাচ্ছে উদ্ধারকর্মীরা। উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনীও। এ দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকজনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী থংলুন সিসলথ। এদিকে লাওসে নিখোঁজদের উদ্ধারে সহযোগিতার জন্য নিজ দেশের উদ্ধারকারী দলকে নির্দেশ দিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে ইন।

যুক্তরাষ্ট্র
ভারী বৃষ্টিপাতে বন্যা দেখা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডো ও পেনসেলভেনিয়ায়। পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় বন্ধ রাখা হয়েছে বেশকিছু মহসড়ক। এছাড়াও ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা থেকে নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের।