বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ০১:৪৩ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
২৮ বছর পর মেয়ের সাথে এইচএসসি পাস করলেন মা ১৩ লক্ষ টাকার কেমিক্যাল মিশ্রিত সুফারি ধ্বংশ করা হয়েছে ফেনীর সাবেক কাউন্সিলর সাখাওয়াতকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যার চেষ্টা মুন্সীগঞ্জে ২০৫ বোতল ফেনসিডিলসহ চালক ও হেলপার গ্রেফতার ফেনীর আঞ্চলিক সাপ্তাহিক”স্বদেশ কন্ঠ” পত্রিকার সম্পাদক খলিলের রহমানের দাফন সম্পন্ন… সারিয়াকান্দিতে যমুনার পানি বিপদসীমার ১০৫ সেন্টিমিটার ওপরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সবাইকে পাকা ঘর বানিয়ে দেয়া হবে,মৌলভীবাজারে ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী জিপিএ-৫ পেলেন তানজিদ এমরান মৌলভীবাজারে মতবিনিময় ও আলোচনা সভা শ্রীমঙ্গল চিড়িয়াখানায় অজগর সাপের ডিম থেকে বাচ্চা ফুটা শুরু

মৌলভীবাজারে লাশবাহী গাড়ী আটকিয়ে পুলিশের চাঁদা দাবীর অভিযোগে সড়ক অবরোধ

স্বদেশ বাংলা
  • প্রকাশ করা হয়েছেঃ শনিবার, ১৫ জুন, ২০১৯
  • ১৪ বার পড়া হয়েছে

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে লাশবাহী গাড়ি আটকে হাইওয়ে পুলিশের চাঁদাবাজির প্রতিবাদে তিন ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন পরিবহন শ্রমিকরা। পরে শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস ছালেক এর সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তোলে নেন।

শ্রমিকরা জানায়, শনিবার (১৫ জুন) সকাল সাড়ে দশটার দিকে ঢাকা সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের বিলাসের পাড় নামক স্থানে সিলেট থেকে শ্রীমঙ্গলগামী একটি লাশবাহী পিকআপ ভ্যানকে কাগজপত্র যাচাইয়ের জন্য থামান হাইওয়ে পুলিশের সাতগাঁও ফাড়ির ইনচার্জ নান্নু মণ্ডল। এসময় ওই গাড়ীর ড্রাইভারের কাছ থেকে তিনি নিয়ম বহির্ভূত ভাবে চাঁদা দাবি করেন এবং লাশবাহী গাড়িটিকে আটকে রাখেন।

এর প্রতিবাদে শ্রমিকরা সাড়ে দশটা থেকে দুপুর দুইটা পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করে রাখেন। এতে ঢাকা সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়। পরে শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস ছালেক এর সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তোলে নেন।

ওসি আব্দুস ছালেক জানান, শ্রমিকদের অভিযোগগুলো খতিয়ে দেখে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ব্যবস্থা নিবেন।

এদিকে ট্রাক ও ট্যাংক লরি শ্রমিক ইউনিয়ন শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শাহাজান মিয়া বলেন, নান্নু মণ্ডলের নৈরাজ্যের মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। আজ উনি যা করেছেন তা অমানবিক। আমরা এর তদন্ত সাপেক্ষে সুষ্ঠু বিচার চাই।

অপরদিকে এই সড়কে চলাচলকারী একাধিক গাড়ির চালক নান্নু মণ্ডলের বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ আনেন। ড্রাইভার পারভেজ মিয়া বলেন, প্রতিনিয়ত নান্নু মণ্ডলের চাঁদাবাজির কারণে আমরা অতিষ্ঠ। সে এই রোডের প্রত্যেকটি গাড়ী জায়গায় জায়গায় আটকিয়ে চাঁদাবাজি করে। চাঁদা না দিলে হাইওয়ে পুলিশের সাতগাঁও ফাড়ির ইনচার্জ নান্নু মণ্ডল চালকদের মারধর করেন বলেও অভিযোগ করেন চলক।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে হাইওয়ে পুলিশ সাঁতগাও ফাড়ির ইনচার্জ নান্নু মণ্ডল বলেন, ‘আমাদের হাইওয়ে পুলিশের মূল দায়িত্ব নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করা। এই কাজ করতে গিয়ে আমরা নানা ধরনের যানবাহন আটকিয়ে কাগজপত্র যাচাই করি। এ কারণেই তারা আমার উপর এরকম ভিত্তিহীন অভিযোগ এনেছে।’

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2019 SadeshBangla.com
The website Developed By Sadeshbangla.Com