বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ০৬:৫০ অপরাহ্ন
সর্বশেষঃ
ফেনীতে ভূ’য়া সমাজ সেবা কর্মকর্তা ভূ’য়া ডিবি পুলিশ চক্রের চার সদস্য আটক মৌলভীবাজারে শিক্ষা সেবিকা সম্মেলন অনুষ্ঠিত ফেনীতে গোয়েন্দা পুলিশের এসআই আলমগীর হোসেনের অভিযানে ২০ কেজি গাঁজাসহ আটক-২ ফেনীর ছাগলনাইয়া থানায় ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেপ্তার মৌলভীবাজারে মদরীছ শাহ (রঃ) এর ওরসে চলছে প্রকাশ্যে গাঁজা সেবন নতুন ভোটারদের NID card প্রদান শুরু ২ মার্চ মুজিববর্ষে মোদিকে আমন্ত্রণ না জানানো অকৃতজ্ঞতার কাজ:ওবায়দুল কাদের মৌলভীবাজারে অনলাইন প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় বগুড়ার খয়রাপুকুরে রেজাউল খুনের ঘটনায় ১৭ জনকে আসামী করে মামালা দায়ের ফেনীতে আইনশৃঙ্খলা কমিটির বৈঠকে নির্বাহী অফিসারের নাসরীন সুলতানা র ক্ষোভ

বগুড়ার খয়রাপুকুরে রেজাউল খুনের ঘটনায় ১৭ জনকে আসামী করে মামালা দায়ের

রিপোর্টারঃ
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৯২ জন নিউজটি পড়েছেন

নামুজা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার খয়রাপুকুরে রেজাউল খু’নের ঘটনায় ১৭ জনকে আসামী করে মামালা দায়ের।
বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পিরব ইউপির খয়রাপুকুর বাজারে আ’ধিপত্য বিস্তার নিয়ে প্রতিপক্ষের মারপিটে রেজাউল করিম খু’নের ঘটনায় ১৭ জনকে আ’সামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি নিহত রেজাউল করিমের ছেলে মোঃ আতিকুর রহমান বাদী হয়ে শিবগঞ্জ থানায় একটি হ’ত্যা মামলা দায়ের করেন। বাদী আতিকুর রহমানের দায়ের করা মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, এলাকায়

প্রাধান্য বিস্তার-কে কেন্দ্র করিয়া আসামীদের সঙ্গে আমার পিতা রেজাউল করিমের পূর্ব হইতে বিরোধ চলিয়া আসিতে ছিল। ইতি পূর্বে বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়া আমার পিতার সঙ্গে আসামীদের ঝগড়া বি’বাদ হইলে আসামীগণ আমার পিতাকে হ’ত্যা করার

হু’মকি প্রদান করিত। আমার পিতা একজন মৎস চাষী। গত ৮ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) রাত্রি সাড়ে ৮টার সময় আমার পিতা শিবগঞ্জ থানাধীন পিরব ইউনিয়নের খয়রাপুকুর বাজারে আলহাজ্ব আব্দুল

কুদ্দুসের দোকানের পিছনে খয়রাপুকুর হাটের উপর দাড়াইয়া জহুরুল ইসলাম, আঃ কুদ্দুস ও দুলাল মিয়ার সহিত বিভিন্ন বিষয়ে আলাপ আলোচনা করাকালে আসামীগণ পূর্ব শত্রুতার জের ধরিয়া পরস্পর যোগসাজসে বে-আইনি জনতায় দলবদ্ধ হইয়া হাতে

লাঠি, লোহার রড, হাসুয়া, চাকু ইত্যাদি অ’স্ত্র-শ’স্ত্র নিয়া হঠাৎ খয়রাপুকুর বাজারে আঃ কুদ্দুসের দোকানের পেছনে হাটের উপড় আমার পিতার চারদিক হইতে ঘিরিয়া ধরিয়া আসামী আমজাদ হোসেন ওরফে মুন্টুর হু’কুমে নিম্নে উলে­খিত আসামীগণ

আমার পিতাকে এলোপাথারিভাবে মা’রপিট শুরু করিলে আমার পিতা আ’সামীদের মধ্যে হইতে বাহির হইয়া দৌড়াইয়া পালিকান্দা গ্রামের দিকে যাইতে থাকিলে নিম্নে বর্ণিত আসামীগণ আমার পিতার পিছু ধাওয়া করিলে খয়রাপুকুর বাজার হইতে দেড়শ’ গজ দক্ষিণে পালিকন্দা মৌজায় আনোয়র

হোসেনের ইরি ধানের মধ্যে পড়িয়া গেলে উক্ত আসামীগণ গিয়া আমার পিতার ডান হাতে কুনইর উপর আ’ঘাত করিয়া মা’রাত্বক কা’টা জ’খম করে। আসামী মোয়াজ্জেম হোসেনের হাতে থাকা হাসুয়া দিয়া আমার পিতাকে হ’ত্যার উদ্দেশ্যে মাথার ডান পার্শ্বে আ’ঘাত করিয়া মা’রাত্বক কাটা

জ’খম করে। আসামী নয়ন, আমিরুল, সাগর মিয়া, জহুরুল ও জুয়েল গণদের হাতে থাকা লোহার রড দ্বারা আমার পিতার দুই হাতে বাহুতে ও কাঁধে আ’ঘাত করিয়া হাড় ভাঙ্গা জ’খম করে। আসামী গণদের

হাতে থাকা লাঠি ও লোহার রডদ্বারা আমার পিতার কোমর হইতে দুই পায়ের পাতা পর্যন্ত উপর্যুপরী আ’ঘাত করিয়া হাড় ভাঙ্গা জ’খম করে। উক্ত আসামীগণ সহ অ’জ্ঞাতনামা আসামীগণ আমার পিতার মৃ’ত্যু নিশ্চিত

করার জন্য এলা’পাতারিভাবে মা’রপিট করিতে থাকিলে খয়রাপুকুর বাজারে থাকা লোকজন এগিয়া আসিলে আ’সামীগণেরা পালিয়ে যায়। এজাহার ভুক্ত আ’মাসীরা যাথাক্রমে (১) আমজাদ হোসেন ওরফে মন্টু, (২) মাহবুর রহমান (৩) মোয়াজ্জেম হোসেন (৪) বাবু মিয়া (৫) মহাতাব হোসেন (৬) সাইদুল ইসলাম ওরফে পচু (৭) বলু মিয়া (৮)

জুয়েল মিয়া (৯) নয়ন হোসেন (১০) আমিরুল ইসলাম (১১) সাগর মিয়া (১২) জহুরুল ইসলাম (১৩) জুয়েল হোসেন (১৪) হেলাল মিয়া (১৫) খায়রুল মিয়া (১৬) সাইদুল ইসলাম (১৭) হযরত আলী। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শিবগঞ্জ থানার

এসআই আলহাজ উদ্দিন। ২৪ ফেব্র“য়ারি এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত এজাহার ভুক্ত কোন আ’সামীকে পুলিশ আটক করতে পারেনি বলে জানা গেছে।
আরো পড়ুন=>> কাবা শরীফের ইমাম হয়েছি শুধু মায়ের দোয়ায়:শাইখ আদিল আল কালবানি

এই সংবাদটি শেয়ার করার অনুরোধ রইল

এই বিভাগের আরো সংবাদ পড়ুন এখানে
© All rights reserved © 2020 Sadeshbd
The website Developed By Sadeshbangla.Com
Translate Language »