1. [email protected] : Tanvir :
  2. [email protected] : Bijoyer Bangla : Bijoyer Bangla
বিস্ফোরণের ঘটনা লাইভ করা সেই অলিউর নিখোঁজ - Sadeshbangla.com
সর্বশেষঃ
বাবর ও রিজওয়ানকে চরম ‘স্বার্থপর’ বললেন শাহিন আফ্রিদি! ফাইনালের সাথে সাথে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করলেন বাংলাদেশ অবাক ক্রিকেট বিশ্ব কোহলিকে পিছনে ফেলে T20 তে নতুন ইতিহাস গড়লেন বাবর আজম এবার এশিয়া কাপে তিন বার মুখোমুখি হবে ভারত-পাকিস্তান! স্পাইডারম্যানের মতো উড়ে গিয়ে বাজপাখির মতো ঝাঁপিয়ে দুর্দান্ত ক্যাচ ধরলেন বিজয়, তুমুল ভাইরাল! রাস্তায় অনেক মানুষ ছিল আমি চিৎকার করেও কারু সাহায্য পাইনি! তাজা খবর:H.S.C পরিক্ষার ফরম পূরণের শেষ তারিখ প্রকাশ! পিএসজি তে মেসির সাথে খেলতে চায় : নেইমার! আমি একা ধরতে পারলে পুলিশ কেন ধরতে পারবে না’: জবি ছাত্রী! প্রমান করে দিলেন পড়াশুনার নাই কোনো বয়স, ৯৮ বছর বয়সে গ্র্যাজুয়েট হয়ে রেকর্ড করলেন!

বিস্ফোরণের ঘটনা লাইভ করা সেই অলিউর নিখোঁজ

  • প্রকাশিত : রবিবার, ৫ জুন, ২০২২
  • ৩০৩ জন পড়েছেন

চট্রগ্রামের বিএম কনটেইনার ডিপোতে আগুনের ঘটনায় নিজের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভ করা তরুণ এখনও নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজ তরুণের নাম অলিউল রহমান। শনিবার (৪ জুন) রাত সাড়ে ৯টার দিকে চট্রগামের বিএম কনটেইনার ডিপোতে আগুনের ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজ অলিউরে চাচা সুন্দর আলী রোববার সকাল ১০ টায় তার ভাতিজা আগুনের ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন বলে বিডি২৪লাইভকে নিশ্চিত করেছেন। তবে বিভিন্ন

গণমাধ্যমে অলিউরের লাশ পাওয়া গেছে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে এ ব্যাপারে তিনি বলেন, আমরা বিভিন্ন হাসপাতালে গিয়ে লাশ দেখেছি কিন্তু অলিউরের লাশটি এখনও পর্যন্ত শনাক্ত করতে পারিনি।

নিখোঁজ অলিউর রহমান মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের ফটিগুলী গ্ৰামের আশিক মিয়ার ছেলে। সে সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে শ্রমিকের কাজ করতেন।

এর আগে অলিউরের সহকর্মী রুয়েল আহমদ গনমাধ্যমেকে জানিয়েছিলেন, আমরা এই সময়টাতে খাবারের জন্য ডিপো থেকে চলে আসলেও ফেসবুকে লাইভ করার জন্য অলিউর সেখানে থেকে যায়। তার লাইভ ভিডিও দেখলেই সবকিছু বুঝা যাবে।

রুয়েল আহমদ আরোও বলেন, আগুন লাগার পর বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হচ্ছিল। এ ঘটনার ভয়াবহতা ছিল অনেক। বিস্ফোরণের ঘটনায় ডিপোর ভেতরে থাকা

কেউ বেঁচে থাকার কথা নয়। আর অলিউর বেঁচে থাকলে আমার কাছেই আসত। কারণ আমরা একসঙ্গে কাজ করি। এক জায়গায়তেই থাকি। যখন বিস্ফোরণ ঘটে তখন মূলত রাতের খাবারের সময় ছিল। নয়তো আরও অনেক লোক মারা যেতেন।

পোস্টটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © ২০১৭-২০২২
Site Customized By NewsTech.Com